সুন্নি মুসলমানদের রক্ষা করতে সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে নতুন সেনাবহর পাঠিয়েছে তুরস্ক

1K Shares

সিরিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় হাসাকা প্রদেশ নতুন করে সামরিক বহর পাঠিয়েছে তুরস্কের এরদোগান সরকার। সিরিয়ার স্বৈরশাসক, গণহত্যার খলনায়ক বাশার আল আসাদের হত্যাযজ্ঞ থেকে সুন্নি মুসলমানদের রক্ষা করার লক্ষ্য নিয়ে এই নতুন সেনাশক্তি পাঠায় তুরস্ক।

আঙ্কারা দীর্ঘদিন থেকে সিরিয়ার সীমান্তবর্তী অঞ্চলগুলো থেকে বাস্তুচ্যুত মুসলমানদের নিজ দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চালিয়ে আসছে।

ব্রিটেনভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা ‘সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস’ এক রিপোর্টে জানিয়েছে, তুরস্কের সামরিক বাহিনীর অন্তত ৪০টি গাড়ির একটি বহর কাফ্‌র লুজিন সীমান্ত ক্রসিং দিয়ে সিরিয়ার ভূখণ্ডে প্রবেশ করেছে এবং এসব গাড়ি হাসাকা প্রদেশের তুর্কি সামরিক বাহিনীর অবস্থানের দিকে এগিয়ে গেছে।

সূত্র: পার্সটুডে

করোনার বিরুদ্ধে ‘প্রথম বিজয়’ ঘোষণা করলো ফ্রান্স!

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে প্রথম জোয়ারে তছনছ ফ্রান্স ধীরে ধীরে ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করেছে। দীর্ঘ লকডাউনের পর স্বাভাবিক জীবনের ফিরতে শুরু করেছে দেশটির জনগণ; যদিও এখনো সংক্রমণ এবং মৃত্যু থামেনি।

এরমধ্যেই করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধে ‘প্রথম বিজয়’ ঘোষণা করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রো। রোববার টেলিভিশনে দেয়া ভাষণে এ ঘোষণা দেন তিনি।

এদিকে প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রো বলেন, প্যারিসসহ গোটা ফ্রান্সকে আগামী সোমবার (১৬ জুন) গ্রিন জোনে পরিণত হবে অর্থাৎ সারাদেশে সতর্কতা সর্বনিম্ন করা হবে। এরফলে দেশটিতে ক্যাফে এবং রেস্টুরেন্টগুলো সম্পূর্ণরূপে খুলতে পরবে।

ভাষণে ম্যাক্রো বলেন, এই প্যানডেমিকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ শেষ হয়নি তবে আমি প্রথম জয়ের জন্য আনন্দিত। অতিমারি মোকাবেলায় ফ্রান্স এবং ইউরোপকে অন্য দেশের উপর নির্ভরশীলতা কমানোর জন্যও কাজ করবেন বলে ঘোষণা দেন তিনি।

বলেন, আমি চাই আমরা যে শিক্ষা পেয়েছি সেটা যেনো কাজে লাগাতে পারি। পরিসংখ্যান বিষয়ক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারসের তথ্য মতে, প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ফ্রান্সে করোনা ভাইরাসে মোট আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৫৭ হাজার ২২০ জন।

এরমধ্যে মারা গেছেন ২৯ হাজার ৪০৭ জন। আর সুস্থ হয়ে ফিরেছেন ৭২ হাজার ৮৫৯ জন। গত চব্বিশ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন ৪০৭ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন আর মৃত্যু হয়েছে ৯ জনের।

1K Shares