নাগোর্নো-কারাবাখের প্রধান শহরে আজারি বাহিনীর হামলা শুরু

0 Shares

নাগোর্নো-কারাবাখের প্রধান শহর স্টিপানাকার্তে আজারবাইজানের সামরিক বাহিনী হামলা চালিয়েছে বলে জানিয়েছে আর্মেনিয়া। শনিবার (৩ সেপ্টেম্বর) সেখানে টানা ষষ্ঠ দিনের মতো সংঘর্ষ চলেছে।

কারাবাখের বিচ্ছিন্নতাবাদীদের বরাত দিয়ে ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি এ খবর জানিয়েছে।

পার্সটুডের খবরে বলা হয়েছে, শুক্রবার কারাবাখের প্রধান শহর স্টিপানাকার্তে আজারবাইজানের সেনারা প্রচণ্ড গোলাবর্ষণ করে এবং এতে বহু মানুষ আহত হয়েছে। ভারী গোলাবর্ষণের পাশাপাশি সেখানে অ্যাম্বুলেন্সের শব্দ শোনা যায়।

আরো পড়ুন: আজারি বাহিনীর আক্রমণে অস্ত্র ফেলে পালাচ্ছে আর্মেনীয় বাহিনী
এদিকে, যুদ্ধবিরতি প্রতিষ্ঠায় আর্মেনিয়া মধ্যস্থতাকারীদের সঙ্গে কাজ করতে প্রস্তুত রয়েছে বলে জানিয়েছে। তবে আজারবাইজান স্পষ্ট করে বলেছে, নাগোর্নো-কারাবাখ থেকে আর্মেনিয়ার সেনা প্রত্যাহার না করলে তারা যুদ্ধ চালিয়ে যাবে।

গত রোববার থেকে শুরু হওয়া এ সংঘর্ষে এরিমধ্যে দুই শতাধিক মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন।
কারবাখ সংঘাত আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত আজারবাইনারে ভূখণ্ড আপার কারাবাখ ১৯৯১ সালে দখল করে নেয় আর্মেনিয়ার সেনাবাহিনী।

এরপর থেকে সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নভুক্ত দু’জাতির মধ্যে উত্তেজনা শুরু হয়। নিরাপত্তা পরিষদের ৪টি এবং জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনের ২টি প্রস্তাবনাসহ আন্তর্জাতিক অনেক সংস্থা দখলকৃত ভূমি থেকে আর্মেনিয়ার প্রত্যাবর্তন দাবি করলেও তা আমলে নেয়নি আর্মেনিয় সরকার।

১৯৯২ সালে ফ্রান্স, রাশিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্রের সমন্বয়ে সংকট সমাধানের উপায় খুঁজার জন্য মিনস্ক গ্রুপ তৈরি হয়। ১৯৯৪ সালে একটি শান্তি চুক্তিও সই হয়। কিন্তু সংকট নিরসনে তা ভূমিকা রাখতে পারেনি। দখলকৃত এলাকায় দ্রুত সংঘাত বন্ধে ফ্রান্স, রাশিয়া এবং ন্যাটোসহ অনেকে আহ্বান জানিয়েছে।

0 Shares