ট্রাম্পের মতো গুণ্ডারাই কেবল অপরাধ ঘটিয়ে উল্লাস করতে পারে: ইরানের সর্বোচ্চ নেতা

0 Shares

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী বলেছেন, ইরানের বিরুদ্ধে মার্কিন নেতাদের উল্টাপাল্টা বক্তব্যের কারণ হচ্ছে তারা ভয় পাচ্ছে। তাদের চিৎকার-চেঁচামেচিকে গুরুত্ব না দিয়ে যৌক্তিক হিসাব-নিকাশের ভিত্তিতে এগিয়ে যেতে হবে। আল্লাহর রহমতে ইরানের অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকবে।

তিনি আরও বলেন, সঠিক ও যৌক্তিক হিসাব-নিকাশের কারণেই ইরান প্রতিরক্ষা সক্ষমতা, ক্ষেপণাস্ত্র শক্তি ও আঞ্চলিক প্রভাবের ক্ষেত্রে বর্তমান অবস্থানে পৌঁছাতে পেরেছে। আর এই শক্তিশালী অবস্থানের কারণেই মার্কিন গুণ্ডারা চেঁচামেচি করছে।

তিনি আজ (সোমবার) সশস্ত্র বাহিনীর বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর যৌথ শিক্ষা সমাপনী অনুষ্ঠানে ভিডিও লিঙ্কের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে এ কথা বলেন। করোনা মহামারির কারণে ভিডিও লিঙ্কের মাধ্যমে তিনি এ অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

ইরানি জাতির বিরুদ্ধে অপরাধমূলক তৎপরতা ইস্যুতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সন্তুষ্টির প্রতি ইঙ্গিত করে সর্বোচ্চ নেতা বলেন, ট্রাম্পের মতো গুণ্ডারাই কেবল এ ধরণের অপরাধ চালিয়ে গর্ব করতে পারে। ইরানি জাতি আমেরিকার অন্যায় নিষেধাজ্ঞাকে মোকাবেলার করে নিজেদের অর্থনীতি শক্তিশালী করবে বলে তিনি জানান।

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা জাতীয় নিরাপত্তা ও সশস্ত্র বাহিনীর বিভিন্ন দায়িত্বের প্রতি ইঙ্গিত করে বলেন, জাতীয় নিরাপত্তা না থাকলে অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ মূল্যবোধ সমস্যার সম্মুখীন হয়। দেশের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার পাশাপাশি সশস্ত্র বাহিনীর আরও অনেক দায়িত্ব রয়েছে। জনগণের সেবা করা সশস্ত্র বাহিনীর অন্যতম বড় দায়িত্ব। করোনা মহামারী মোকাবেলায় সশস্ত্র বাহিনী সক্রিয়ভাবে মাঠে রয়েছে বলে তিনি জানান।

আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী বলেন, বাঁধ ও শোধনাগার নির্মাণসহ দেশের অবকাঠামোগত উন্নয়নে সশস্ত্র বাহিনীর ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। এছাড়া দেশের স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা খাতে সহযোগিতা দেওয়া সেনাবাহিনীর গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব।

করোনা মহামারী মোকাবেলায় সশস্ত্র বাহিনীর সক্রিয় অংশগ্রহণের প্রশংসা করেন তিনি। সর্বোচ্চ নেতা বলেন, সশস্ত্র বাহিনী মানুষের দৈনন্দিন সমস্যা মোকাবেলা এবং ত্রাণ তৎপরতায় ব্যাপক সহযোগিতা করছে।#

0 Shares