কারাবাখ দখল করে আজারবাইজানি সেনাদের হাতে পতাকা তুলে দিচ্ছে তুরস্কের সেনারা

0 Shares

নাগোরনো-কারাবাখ নিয়ে আর্মেনিয়ার সঙ্গে যুদ্ধে আজারবাইজানের প্রতি আবারও সমর্থনের কথা জানিয়েছে ইউরোপের মুসলিম রাষ্ট্র তুরস্ক।

অরগানাইজেশন অব ব্ল্যাক সি ইকোনোমিক কোঅপারেশনের (বিএসইসি) তুর্কি ডেলিগেশনের প্রধান ও পার্লামেন্ট সদস্য কামাল ওজতুর্ক বুধবার (৭ অক্টোবর) চিঠির মাধ্যমে আজারবাইজানি প্রধানকে এ কথা জানান।

বিএসইসির আজারবাইজানি প্রধান এলদার গুলিয়েভকে লেখা চিঠিতে কামাল ওজতুর্ক বলেন, তুরস্ক আজারবাইজানের পাশে আছে। আমরা চাই, নাগোরনো-কারাবাখে আমাদের আজাবাইজানি ভাইয়েরা তাদের পতাকা তুলে ধরুক।

কৃষ্ণসাগর অর্থনৈতিক সহযোগিতা সংস্থা বা বিএসইসির সদস্য দেশের সংখ্যা ১২টি। রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক বিভিন্ন উদ্যোগের মাধ্যমে কৃষ্ণসাগর অঞ্চলে পারিস্পারিক সহযোগিতা বৃদ্ধি, শান্তি ও স্থিতিশীলতা জোরদার করতে এই সংস্থা কাজ করে থাকে।

কামাল ওজতুর্ক বলেন, আঞ্চলিক শান্তি ও নিরাপত্তার ক্ষেত্রে আর্মেনিয়া একটি বড় বাধা। নাগোরনো-কারাবাখে আর্মেনিয়ার দখলদারিত্বের বিরুদ্ধে আজারবাইজানের পাশে দাঁড়াতে তিনি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানান।

উল্লেখ্য, সোভিয়েত ইউনিয়ন পতনের পর থেকেই এই অঞ্চলে দুই দেশের বিরোধ চলে আসছিল। ১৯৯০ এর দশকে আর্মেনিয়ান নৃগোষ্ঠী আজারবাইজানের কাছ থেকে কারাবাখ দখল করে। এ নিয়ে সংঘাত ছড়িয়ে পড়ে সে সময়ই। শুরু হয় যুদ্ধ, যাতে প্রাণ হারিয়েছিলেন ৩০ হাজার মানুষ।

১৯৯৪ সালে দুই পক্ষের মধ্য যুদ্ধবিরতি চুক্তিতে সরাসরি সংঘাতের ইতি ঘটলেও এ নিয়ে দুই দেশের বিবাদ অব্যাহত ছিল। নিজেদের অঞ্চল আবার দখলে বেশ কয়েকবারই সামরিক অভিযানের হুমকি দেয় আজারবাইজান।

আরও পড়ুন : শত্রুমুক্ত জাব্রাইল, নগরের প্রাণকেন্দ্রে উড়ল আজারবাইজানের পতাকা (ছবিসহ)

এরপর সেপ্টেম্বরের শেষ সপ্তাহ থেকে দেশ দুটির মধ্যে আবারো সংঘর্ষ শুরু হয়।

সূত্র : ইয়েনি শাফাক

0 Shares