উত্তরা ইপিজেডে শ্রমিক ছাঁটাইয়ের প্রতিবাদে বিক্ষোভ, অগ্নিসংযোগ

0 Shares

শ্রমিক ছাঁটাইয়ের প্রতিবাদে নীলফামারীর উত্তরা ইপিজেড’র এভারগ্রীন বিডি ফ্যাক্টরি লিমিটেডের বিক্ষুব্ধ শ্রকিকেরা দফায় দফায় বিক্ষোভসহ ফ্যাক্টরির মূল ফটক ভাঙচুর এবং অগ্নিসংযোগ করেছেন। এ সময় পুড়িয়ে দেয়া হয় কয়েকটি মোটরসাইকেল, কাভার্ড ভ্যান এবং ভাঙচুর করা হয় কয়েকটি কম্পিউটার।

শনিবার (২৭ জুন) সকালে ছাঁটাই হওয়া শ্রমিকরা কারখানার সামনে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ শুরু করে। এর এক পর্যায়ে তারা কারখানাটির পাঁচটি কাভার্ড ভ্যান, কয়েকটি মোটরসাইকেল ও অফিসের কম্পিউটারসহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র পুড়িয়ে দেন। পরে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের নীলফামারী, সৈয়দপুর ও ইপিজেডের তিনটি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। পরে জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এবিএম আতিকুর রহমান ও ইপিজেডের জিএম এনামুল হক উপস্থিত হয়ে শ্রমিকদের চাকরিতে বহাল করার আশ্বাস দিলে শ্রমিকরা ফিরে যান

ছাঁটাই করা শ্রমিকরা জানান, বেপজার বিধি লঙ্ঘন করে এভারগ্রীন বিডি ফ্যাক্টরি লিমিটেড (পরচুলা তৈরি) কারখানাটি বিভিন্ন সময় শ্রমিক ছাঁটাই করে আসছে। করোনাকালীন তার মাত্রা আরও বেড়ে গেছে। এমনকি দীর্ঘদিন ধরে কাজে থাকা শ্রমিকদেরও ছাঁটাই করে কম মজুরিতে নতুন শ্রমিক নিয়োগ দিয়ে আসছে প্রতিষ্ঠানটি। করোনার মধ্যেও তারা সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ফ্যাক্টরিতে কাজ করেছেন। হঠাৎ করোনাকালে কর্তৃপক্ষ চার শতাধিক শ্রমিককে ছাঁটাই করেছে বিভিন্ন সময়ে।

বেপজার জেনারেল ম্যানেজার এনামুল হক জানান, শুধুমাত্র এভারগ্রীন ফ্যাক্টরিতে কিছু সমস্যা দেখা দিয়েছে। তবে অন্যান্য ফ্যাক্টরিতে কোন সমস্যা নেই।

0 Shares